আপনি জিহাদ করবেন আর ওরা ক্রুসেড করবে না!

বুধবার, এপ্রিল ২৪, ২০১৯ ৫:৫৫ PM | বিভাগ : আলোচিত


মৌলবাদী মুসলমান আর আপনার মধ্যে আপনি লেবাছে পার্থক্য করেন না। "ধর্ম" ইসলাম আর "রাজনীতি" ইসলামের মধ্যে আপনি পার্থক্য করেন না। কথায় কথায় আলহামদুলিল্লাহ বলেন। রাজাকারের বাচ্চাদের পেছনে আপনি নামাজ পড়েন। বউ মেয়েকে মৌলবাদী পোশাকে ছহি ইমানদার বানান। "ইসলামী পোশাক" পড়লে ধর্ষণ হবে না ফতোয়া দেন।

মৌলবাদী জঙ্গি কারা হয় আপনি বুঝেন না? আপনি ১৯৭১ সালে দেখেন নাই কারা রাজাকার হয়েছিলো বাংলাদেশে? "ইসলাম" শুনলেই আপনার আনন্দের ক্যোঁৎকোঁতানি শুরু হয়। "পরকাল নাই" শুনলেই আপনার আবার রাগের ক্যোঁৎকোঁতানি শুরু হয়। "ধর্ম" আপনি আর ধর্ম রাখেন নাই, "জাতীয়তা" বানাইছেন, রাজনীতি বানাইছেন, পেশা বানাইছেন, ব্যবসা বানাইছেন। আর আপনার মার্কিন পিতার দেয়া "মোডারেট" নাম নিয়া ঘাতক জঙ্গিদের খুনের রক্ত মোছার কাজ করেন, এই বলে যে "ইহা ছহি ইসলাম নয়"। আপনার পতাকায় একপাশে "জয়বাংলা" আরেক পাশে "আল্লাহু আকবর" লাগাইছেন। বাঙ্গালী জাতী থেকে নয়া মুসলমান জাতী হইছেন?

সামনে আপনার খুব খারাপ দিন আসতেছে। মধ্যপ্রাচ্য যুদ্ধ তার উদহারন। আপনি জ্বিহাদ করে তিন হাজার নিরাপরাধ মানুষ মারছেন। আর ওরা ক্রুসেড করে তিন কোটি মারছে। নিউজল্যান্ড আরেক উদহারন। আপনি বলেন আপনার ধর্ম শ্রেষ্ঠ, ওরা বলে ওদেরটা শ্রেষ্ঠ। ওরাও সন্ত্রাসী হামলা চালাবে। সন্ত্রাসী হামলা আপনার একচেটিয়া না। আপনি জ্বিহাদ করবেন আর ওরা ক্রুসেড করবে না?

সামনে আপনার খারাপ দিন আসতেছে, কারণ সন্ত্রাসবাদ একটি মুনাফা অর্জনের জন্য বিনিয়োগ ক্ষেত্রে। পুঁজিবাদ সব কিছুকেই পণ্য বানাতে পারে। যেমন নানা রকম হালাল "ইসলামী" প্রোডাক্ট আছে; ধর্ম এখন নানা প্রোডাক্ট, কিনবেন আর ধার্মিক হবেন। সন্ত্রাসবাদও "নিরাপত্তা" প্রোডাক্ট বাজারে নিয়ে আসছে, সামরিক বাজেটও বাড়ছে, এই ক্ষেত্রে মুনাফা বাড়ছে।

আপনি যদি মনে করেন, আপনি ধার্মিক, ইসলাম আপনার ধর্ম, আপনি কেন আপনার "ইসলাম" নিয়ে রাজনীতি করেন? আপনি যখন "ইসলাম" নিয়ে রাজনীতি করেন, আপনি মৌলবাদী, এই সময়ের রাজাকার। বাংলাদেশে রাজাকারেরাই ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করেছে। আপনি যদি ছহি ইমানদার হয়ে থাকেন, আল্লাকে ভয় পান, আপনি কেনো পুরনো সব রাজাকারদের ভয়ে আপনার বউ মেয়েকে হিজাব পরাচ্ছেন? মাথায় গোল টুপী লাগাইছেন? লেবাছ দিয়ে কি বুঝাইতে চান?

আপনি যদি সেক্যুলার মুসলমান হন, মৌলবাদের বিরোধিতা করুন প্রকাশ্যে। আপনি যদি সূফী মুসলমান হন, মৌলবাদের বিরোধিতা করুন, প্রকাশ্যে। মৌলবাদী লেবাছ বন্ধ করেন। আপনার লেবাছ দিয়ে আপনি মৌলবাদকে উৎসাহিত করছেন। বুদ্ধিজীবী কোপানোর সময় আপনি চুপ থাকেন, "ওরা নাস্তিক" বলে। ওরা নাস্তিক কি আস্তিক এইটা আপনে দেখবেন, না কি আপনার আল্লা দেখবে? জঙ্গিরা কোরানের "অপব্যাখ্যা" করে? যে বইয়ের অপব্যাখ্যা করা যায়, সে বই তাহলে বোঝার চেষ্টা করেন, সেটা নিয়ে পাবলিকেরে হেদায়েত করতে আসেন কেন?

আগে নিজে ঠিক করেন, আপনি কি মৌলবাদী মুসলমান, সেক্যুলার মুসলমান, সূফী মুসলমান, কালচারাল মুসলমান, কোনটি? সেকুলারও হবেন আবার মৌলবাদ তোষণ করবেন, তাহলে আপনারও খারাপ দিন সামনে। নিজের ঘর নিজে সামলান, ইসলাম নিয়ে "রাজনীতি" বন্ধ করেন, তা না হলে আপনার "ধর্ম" ইসলামও চলে যাবে "রাজনীতি" ইসলামের সাথে।


  • ১৯২ বার পড়া হয়েছে

পূর্ববর্তী লেখা পরবর্তী লেখা

বিঃদ্রঃ নারী'তে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার বিষয়বস্তু, ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া ও মন্তব্যসমুহ সম্পূর্ণ লেখকের নিজস্ব। প্রকাশিত সকল লেখার বিষয়বস্তু ও মতামত নারী'র সম্পাদকীয় নীতির সাথে সম্পুর্নভাবে মিলে যাবে এমন নয়। লেখকের কোনো লেখার বিষয়বস্তু বা বক্তব্যের যথার্থতার আইনগত বা অন্যকোনো দায় নারী কর্তৃপক্ষ বহন করতে বাধ্য নয়। নারীতে প্রকাশিত কোনো লেখা বিনা অনুমতিতে অন্য কোথাও প্রকাশ কপিরাইট আইনের লংঘন বলে গণ্য হবে।


মন্তব্য টি

লেখক পরিচিতি

খান আসাদ

সমাজকর্মী

ফেসবুকে আমরা